You are currently viewing Bhutan

Bhutan

প্যাকেজ মূল্যঃ ১৮,৭০০ টাকা
সময়সীমাঃ ৬ রাত ,৭ দিন
ঢাকা থেকে যাত্রা শুরু। এসি বাস, মানসম্মত হোটেলে থাকা, সকল খাবার, ঘোরাঘুরি, ই-টোকেন ও ভিসা প্রসেসিং সহায়তা এই প্যাকেজে অন্তর্ভুক্ত। সাথে থাকছে সার্বক্ষণিক অভিজ্ঞ গাইড সেবা। এছাড়াও আমরা কর্পোরেট, গ্রুপ ট্যুরের আয়োজন করে থাকি।
ভূটানে যেকোনো কর্পোরেট, ফ্যামিলি ট্যুর এবং গ্রুপ ট্যুরের জন্য যোগাযোগ করুন আমাদের সাথে।
এছাড়াও ভূটানের বাই এয়ার প্যাকেজ করা হয় (কমপক্ষে ২ জন) এবং বাই রোডে (কমপক্ষে ৪ জন) যে কোন দিন।

#ভ্রমণের_বিবরণী :

#১ম_দিন:
সকাল ৯টা: বুড়িমারী ও চ্যাংরাবান্ধা ইমিগ্রেশনের কাজ সম্পন্ন।
বেলা ১১টা: চ্যাংরাবান্ধা বর্ডার থেকে ভূটানের জয়গাঁ বর্ডারের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।
বেলা ১টা ৩০ মিনিট: জয়গাঁ ও ফুন্টশেলিং বর্ডার এর কাজ সম্পন্ন।
বেলা ৩টায়: দুপুরের খাবার গ্রহণ। তারপর থিম্পুর দিকে রওনা দিব রেসেরভে ট্যাক্সি নিয়ে রাত ৯;৩০ এ থিম্পু অবস্তান করব ।

রাত ১০;০০টা: রাতের খাবার গ্রহণ।
রাতে থিম্পুর হোটেল শান্তিদেভা অবস্থান।

#২য়_দিন
সকাল ৭টা ৩০ মিনিট: সকালের নাস্তা।
সকাল ৮টা: থিম্পু সিটি সাইটসিইং রয়েল প্যালেস, ভূটান পার্লামেন্ট, বোদ্ধা পয়েন্ট, আরচারী গ্রাউন্ড, কিং প্যালেস, লোকাল মার্কেট, বি বি এস টাওয়ার, দি ক্লক টাওয়ার, : মেমোরিয়াল চোর্টেন ভ্রমণ।
বেলা ২টা: দুপুরের খাবার গ্রহন।
রাত ৯টা: রাতের খাবার গ্রহন।
রাত ৯টায় রাতের খাবার গ্রহন। স্থান: হোটেল-শান্তিদেভা
রাতে হোটেল এ অবস্থান।

#৩য়- দিনঃ সকাল ৭টা ৩০ মিনিট: সকালের নাস্তা। স্থান: হোটেল -শান্তিদেভা
সকাল ৮টা: পারোর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।
পারো সাইটসিইং এর স্থান এর নাম: আয়রন ব্রিজ, পারো এয়ারপোর্ট, ন্যাশনাল মিউজিয়াম, পারো জং, ফেমাস তাকসাং মনেস্ট্রি।
বেলা ১টা দুপুরের খাবার গ্রহন। স্থান: হোটেল ফুনসাম।
রাত ৯টায় রাতের খাবার গ্রহন। স্থান: হোটেল-শান্তিদেভা
রাতে হোটেল এ অবস্থান।

#৪র্থ_দিনঃ সকাল ৭টা ৩০ মিনিট: সকালের নাস্তা। স্থান: হোটেল -শান্তিদেভা
সকাল ৮টা: পুনাখার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু। Local sightseeing Punakha song, Chimilkhang, etc
বেলা ১টা দুপুরের খাবার গ্রহন। ব্যাক করব হোটেল এ
রাত ৯টায় রাতের খাবার গ্রহন। স্থান: হোটেল-শান্তিদেভা
রাতে হোটেল এ অবস্থান।

#৫ম _দিনঃ সকাল ৭টা ৩০ মিনিট: সকালের নাস্তা। স্থান: হোটেল –শান্তিদেভা
সকাল ৮টা: ফুএন্তশিলং উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।
বেল ১২ টায় ফুন্টশেলিং পৌঁছব এবং ভূটান এবং ইন্ডিয়া ইমিগ্রেশন এর কাজ শেষে
দুপুর ২ টায়: টাটা সমু জিপ এ করে জয়গা থেকে চ্যাংরাবান্ধা বর্ডার এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।
বেলা ৪টায় চ্যাংরাবান্ধা ও বুড়িমারী বর্ডার এর কাজ সম্পন্ন।
সন্ধ্যা ৬ টায় বুড়িমারী থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।

#৬ষ্ঠ দিন:
সকাল ৬ টায় ঢাকা পৌঁছনো ও ট্যুরের সমাপ্তি।

বি:দ্র: যেকোনো পরিস্থিতি এড়ানোর জন্য “ভ্রমণ লিমিটেড” যেকোনো প্যাকেজ, সাইটসিইং, খাবার মেনু পরিবর্তন করার অধিকার সংরক্ষন করে।

#হোটেল:
Phuentsholling : Hotel Midpoint
Thimpu :Hotel Shantideva
Paro : Hotel Tashi lodge

#প্যাকেজে_যা_অন্তর্ভুক্তঃ
* ঢাকা-বুড়িমারী-ঢাকা (নন এসি বাস)
* ঘোরাঘুরির জন্য টাটা সুমু জীপ/ ট্যাক্সি
* রিজার্ভড গাড়িতে সাইটসিয়িং
* ৪ রাত ভূটানে থাকা -, থিম্পু ৩ রাত, এবং পারো ১ রাত
* ভূটান ভূখণ্ডে মেনু নির্ধারিত খাবার (সকালের নাস্তা , দুপুরের খাবার , রাতের খাবার )
* সার্বক্ষণিক একজন বাঙ্গালী গাইড এবং ট্যুর কো-অর্ডিনেটর এর সহযোগিতা
* ট্রানজিট ভিসা প্রসেসিং সহায়তা

#প্যাকেজে_যা_অন্তর্ভুক্ত_নয়:
• ভিসা ফি ৬০০/-
• ট্রাভেল ট্যাক্স ৫০০/-
• চিকিৎসা খরচ
• ব্যক্তিগত খরচসমূহ
• বর্ডার টিপস ৬০০/-
• অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির খরচ
• যা অন্তর্ভূক্ত করা হয়নি এমন খরচ

#সাথে_যা_বহন_করতে_হবে:
• ভূটান ঢাকার চেয়ে ঠাণ্ডা হওয়ায় হালকা ও ভারী শীতের কাপড়।
• বৃষ্টি থেকে নিরাপদ থাকতে ছাতা/ রেইনকোট।
• পাহাড়ি পথে হাটার জন্য কেডস।
• রোদ থেকে নিরাপদ থাকতে সানগ্লাস, সানক্যাপ।
• বাইনোকুলার, ক্যামেরা।
• টুথপেস্ট, টুথব্রাশ, টাওয়েল, স্লিপার।
• জরুরি ঔষধ। ফার্স্ট এইড ব্যান্ডেজ।

#ইন্ডিয়ান_ভিসার_ইটোকেন_পেতে_যা_প্রয়োজনঃ
> পাসপোর্ট ফটোকপি
> ন্যাশনাল আইডি কার্ড/ জন্মনিবন্ধনী সার্টিফিকেট কপি
> বিদ্যুৎ/ পানি/ টেলিফোন বিলের কপি
> ভিজিটিং কার্ড/ পেশার বিস্তারিত/ফোন নম্বর
> ছবি ১ কপি 2*2

#ভিসা_প্রসেসিং_করার_প্রয়োজনীয়_ডকুমেন্টসের_তালিকাঃ
১। মিনিমাম ৬ মাসের ভ্যালিড পাসপোর্ট ( পুরনো পাসপোর্ট থাকলে সেটাও দিতে হবে)
২। পাসপোর্টের প্রথম দুই পৃষ্ঠার ফটোকপি, ভিসাসহ (যদি থাকে)।
৩। ন্যাশনাল আইডি কার্ড অথবা ১৮ বছরের কম হলে জন্ম নিবন্ধন সনদের ফটোকপি।
৪। বর্তমান ঠিকানা নিশ্চিতকরণের জন্য বিদ্যুৎ/ পানি/ টেলিফোন বিলের কপি।
৫। ছবি ১ কপি, ল্যাব প্রিন্ট (২”/২”, ছবির ব্যাকগ্রাউন্ড সাদা হতে হবে)।
৬। ব্যাংক ষ্টেটম্যান্ট (বিগত ৩ মাসের)। ব্যালেন্স কমপক্ষে ২০,০০০/- টাকা। ব্যাংক হিসাব না থাকলে ২০০ ডলার এন্ডোর্সমেন্ট অথবা এন্ডোর্সমেন্ট এর জন্য অতিরিক্ত ২০০ টাকা।
৭। চাকুরীজীবীদের জন্যে অফিস থেকে এন ও সি লেটার (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট)।

Leave a Reply