Explore Bogalake-Keokradang

Explore Bogalake-Keokradang

ট্যুর প্ল্যানঃ
ঢাকা -বান্দরবান –রুমা বাজার – বগালেক–চিংড়ি ঝর্না–দার্জিলিং পাড়া – কেওক্রাডং – পাসিং পাড়া – জাদিপাই পাড়া – জাদিপাই ঝর্না (অনুমতি সাপেক্ষে)-কেওক্রাডং-বগালেক-রুমা-নীলগিরি -চিম্বুক-শৈলপ্রপাত -স্বর্ণ মন্দির- ঢাকা

টাইম ফ্রেমঃ ৩ দিন+৪ রাত

Day-1>>14 December>> Friday
Day-2>>15 December>>Saturday>>
Day-3>>16 December>>Sunday >> Independent Day ছুটি

বাজেটঃ ৫৫০০ টাকা।
(সামান্য কিছু এদিক সেদিক হতে পারে – কারণ আমরা চাঁদের গাড়িতে করে ডাইরেক্ট কেওক্রাডং যায় কথা ভাবছি)

Confirmation Deadline: 05th December 2018

সদস্যঃ সর্বোচ্চ ২৬ জন।

ভ্রমন সম্পর্কিত যে কোন তথ্য জানতে কল করুন :- বিস্তারিত তথ্যর জন্য যোগাযোগ করুন- 01907473510, 01907473506
অথবা মেসেজ করুন: (ইনবক্স লিংক: https://www.facebook.com/AirConfidence/

* যা যা থাকছে এর মধ্যেঃ
– ঢাকা -বান্দরবন- ঢাকা নন এ/সি বাস এর টিকেট
– চাঁদের গাড়ির সকল খরচ
– থাকা, খাওয়া-দাওয়া, বারবিকিউ, পরিবহন খরচ।
– চাঁদের আলোর কম্বল গায়ে দিয়ে কেউক্রাডং চূড়ায় রাত্রি যাপন, কেউক্রাডং চূড়ায় সূর্যোদয় দর্শন এবং পরের রাত বগা লেকে রাত কাটানোর থাকা খাওয়া খরচ।
– গাইড খরচ।

Details Tour Plan

13 December: রাত ৮: ০০ টায় নন-এসি বাসে বান্দরবান যাত্রা।

14 December: বান্দরবান পৌঁছে হালকা কিছু পেটে চালান করে ৭টায় চান্দের গাড়ী/বাসে চেপে রুমার উদ্দেশ্যে যাত্রা।

রুমায় আর্মি এবং পুলিশ ক্যাম্পে রিপোর্ট,
আবার Breakfast আবার চান্দের গাড়ি লক্ষ্য বগা লেক।

তবে নামতে হবে বগার আগে কমলা বাজার/এগার মাইলে।এরপর ঘন্টা খানেকের ট্রেক করে বহু কাঙ্খিত বগা দর্শন।

এরপর Lunch then Start Trekking for কেওক্রাডং ।
মাঝপথে চিংড়ি ঝর্ণায় হই হুল্লোড়।
সন্ধ্যা বেলা “কেওক্রাডং পৌঁছে কেওক্রাডং জয় এবং মালিক লারা বম’এর”র কটেজে থাকা এবং ডিনার।
ইনশাল্লাহ ঐ রাতে হবে পাহাড়ের চূড়ায় চন্দ্রবিলাস সাথে মাতাল হাওয়া।

15 December: সকালে কেউক্রাডং চুড়ায় সূর্যোদয় দেখে ঝর্ণা ধারা জাদিপাই।পথে পরবে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ গ্রাম পাসিং পাড়া।
কপাল ভাল থাকলে মেঘের দেখা মিলবে। (তবে জাদি পাই দেখার অনুমতি মিললেই শুধু যেতে পারব, তদবির চলছে দেখা যাক)

জাদিপাই দেখে দুপুরবেলা কেওক্রাডং এ লারা বম’এর হোটেলে Lunch /দুপুরে হয়তো শুকনো খাবার খেয়ে থাকতে হবে ।
এরপর রওনা হব বগালেকের উদ্দেশ্যে।
বগায় রাত্রিযাপন সাথে BBQ পার্টি….

16 December: Breakfast করে এগার মাইল পর্যন্ত Trekking, অতপর চান্দের গাড়ী করে করে রুমা বাজার,নীলগিরি, চিম্বুক, শৈলপ্রপাত হয়ে স্বর্ণ মন্দির,বান্দরবান এবং রাতের বাসে ঢাকা।

17 December: সকাল বেলায় ঢাকায় পৌছাবো ইনশাআল্লাহ।

কনফার্ম করার আগে যে ব্যাপার গুলো অবশ্যই বিবেচনা করতে হবেঃ
এই প্ল্যানে কোন সমস্যা না হলে চেঞ্জ হতে করা হবে না আশা করি । প্ল্যান এর ব্যাপারে যে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত অ্যাডমিনদের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত । অভিযোগপ্রবন ব্যক্তিরা আমাদের ইভেন্টের থেকে দূরে থাকবেন প্লীজ। থাকার জায়গা ভালো হয় নাই, খাওয়া দাওয়া রান্না খুব একটা ভালো হয় নাই, এটা সমস্য ওটা সমস্যা এই রকম কিছু একটা পিকনিক ইভেন্ট চলে ট্রেকিং ট্রিপে অনেক কিছু মানিয়ে নিতে হয় সেটা অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে। এগুলো মেনে নেয়ার ক্ষমতা যে সব মানুষের ভিতর নাই তাকে অনুরোধ করে বলবো যে ভাই এই ইভেন্ট আপনার জন্য নয়।

* আপনাকে মোবাইল নেট এর বাইরে থাকতে হতে পারে।

* খুব প্রয়োজনীয় ছাড়া কিছু নিবেন না, অতিরিক্ত কাপড় ভ্রমণের প্রধান শত্রু। দুটি থ্রি কোয়ার্টার প্যান্ট, একটি বা দুটি টি শার্ট নিলেই যথেষ্ট, কারণ ওখানে আপনাকে কেও দেখবেনা কেমন দেখাচ্ছে, বরং আপনার অতিরিক্ত ভারি কিছু আপনার ভ্রমণের আনন্দ নষ্ট করে দিবে।

* এখানে এক রুমে সবাই মিলে থাকতে হবে, এমনকি কোন ভালো বালিশ বা কাথা ও না থাকতে পারে, তাই ব্যক্তিগত চাঁদর সাথে রাখবেন।

* মোটামুটি কষ্ট করতে হবে ধরেই নিবেন, তাইলে কষ্ট টা অনাকাঙ্ক্ষিত মনে হবে না।

*যদি এই শর্ত গুলো জেনেও মনে হয় আপনি পারবেন,তাইলে আপনার ভ্রমণ ইতিহাস হয়ে থাকবে।।
****************************************************************************

যা থাকছে না:-
ব্যাক্তিগত মেডিসিন / ব্যাক্তিগত খরচ….

** ভ্রমণের জন্য যে কেও আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।
ছেলে/ মেয়ে সকলেই যেতে পারবে।

প্রয়োজনীয় :-
১) হালকা ব্যাগপ্যাক..
২) ৩/৪ দিন এর উপযোগী হালকা কাপড়..
৩) লুঙ্গী, গামছা..
৪) সানগ্লাস, ক্যাপ
৫) ক্যামেরা ( ছবি তো তুলতেই হবে)
৬) পলিথিন.. ( মোবাইল, ক্যামেরা বৃষ্টির হাত থেকে বাচানোর জন্য)
৭) হালকা খাবার( চিপস বিস্কিট টাইপ)
৮) টর্চ
৯) স্টিলের মগ
১০) টুথপেস্ট, ব্রাশ
১১) ট্রেকিং উপযোগী হাল্কা জুতা বা স্যান্ডেল
১২) এংলেট, নি-গার্ড

সতর্কতা :-
১)সুন্দর একটা জায়গা… কিন্তু যাত্রাপথটা কষ্টকর…তাই কষ্টসহিষ্ণু হওয়াটা জরুরী…
অনেক জায়গা আছে যেখানে পথে কোনো দোকান পাঠ পরবে না…
সেক্ষেত্রে ব্যাগ প্যাকে শুকনা খাবার রাখা জরুরী…

২) এটা কোনো রিলাক্স ট্রিপ না…
তাই মেনে নেবার মনমানসিকতা থাকা জরুরী…

৩) দলনেতার কথা নিজের প্রয়োজনেই মেনে নিতে হবে…

৪) আদিবাসীদের সাথে কোনো প্রকার ঝামেলায় যাওয়া যাবে না…

৫) যেহেতু ম্যালেরিয়া এবং জোঁক প্রবন এরিয়া সেহেতু ম্যালেরিয়া প্রতিষেধক মেডিসিন গ্রহন অত্যাবশ্যক…
সাথে ওডোমস ক্রিম রাখবেন…
জোঁকের জন্য লবন/গুল/ সরিষার তেল সাথে রাখা জরুরি…

৬)কোনো প্রকার মাদক গ্রহন বা বহন করা যাবে না…

৭)কারো মনে আঘাত দিয়ে কোনো প্রকার ফাজলামো তে যাওয়া যাবে না…

৮)আমরা ভদ্রতা বজায় রেখে সর্বোত্তম মজা করার চেষ্টা করবো….

৯) সব চেয়ে জরুরি একটা ভ্রমন পিপাসু মন

টাকা পাঠানোর শেষ দিন – 05th December 2018
✔️ব্যাংকের মাধ্যমে দিতে :-
*ডাচ্ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড
একাউন্টের নাম : Air Confidence
একাউন্ট নম্বর : 107.110.0026555
শাখা : Kawranbazar (যেকোন শাখা থেকে জমা দেয়া যাবে)

Social Islami Bank Limited( SIBL)
একাউন্টের নাম : Air Confidence
একাউন্ট নম্বর : 027.133.000.8185
শাখা : Banani (যেকোন শাখা থেকে জমা দেয়া যাবে)
অথাবা ফোনে যোগাযোগ করে হাতে হাতেও দিতে পারেন…
NI Tower (Level-4), Road- 10, Block- E,
Enamul Hoq Chowdhury Road, Banani
Dhaka, Bangladesh

Call 02-48810630
বিঃদ্রঃ টাকা পাঠানোর পর অবশ্যই ফোন/মেসেজ/পোষ্ট দিয়ে কনফার্ম করবেন।
অবশ্যই টাকা পাঠিয়ে 01907473510, 01907473506 এই নাম্বারে ফোন অথবা মেসেজ করতে হবে ।
বিঃদ্রঃ কেউ ফোনে না পেলে অবশ্যই ফেসবুকে টেক্সট করে রাখতে পারেন।

✔️যে কোন প্রয়োজনে কল করুন :- 01907473510, 01907473506
ধন্যবাদ।

Leave a Reply